আপনার অবস্থান
মুলপাতা > অন্যান্য সংবাদ > সাংবাদিক সুরক্ষায় জাতীয় মানবাধিকার কমিশনকে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখার আহ্বান জানাল আর্টিকেল ১৯

সাংবাদিক সুরক্ষায় জাতীয় মানবাধিকার কমিশনকে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখার আহ্বান জানাল আর্টিকেল ১৯

সাংবাদিকদের সুরক্ষায় জাতীয় মানবাধিকার কমিশনকে আহ্বান জানিয়েছেন আর্টিকেল ১৯ বাংলাদেশ ও দক্ষিণ এশিয়ার পরিচালক তাহমিনা রহমান।

১৯৯৫ সাল থেকে নিয়ে এ পর্যন্ত ৫১ জন সাংবাদিক ও অনলাইন অ্যাকটিভিস্ট হত্যার চিত্র তুলে ধরে এক সেমিনারে প্রধান আলোচক হিসেবে তিনি আজ সোমবার এ আহ্বান জানান। বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড এন্ড সার্ভিসেস ট্রাস্ট (ব্লাস্ট) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আরসি মজুমদার অডিটোরিয়ামে ‘মত প্রকাশের স্বাধীনতার সুরক্ষা’ শীর্ষক এই সেমিনার আয়োজন করে।

তাহমিনা রহমান বলেন, ৫১ সাংবাদিক ও অনলাইন অ্যাকটিভিস্ট হত্যার মধ্যে কেবল দুইটি হত্যার বিচার হয়েছে নি¤œ আদালতে, অন্যদিকে বেশিরভাগ মামলাই এখনো তদন্ত পর্যায়ে যার মধ্যে ১৫-২০ বছরব্যাপী পুরনো হত্যা মামলাও রয়েছে। সকল সাংবাদিক হত্যাকা-ের দ্রুত বিচার নিশ্চিত করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি আরো বলেন, দীর্ঘ পাঁচ বছর পেরিয়ে গেলেও সাগর-রুনি হত্যাকা-ের চার্জশীট হয়নি, ন্যায়বিচার তো দূরের কথা। আন্তর্জাতিক নারী দিবসকে সামনে রেখে তিনি সাংবাদিক রুনি ও সাগর দম্পতির হত্যার ন্যায়বিচার দ্রুত নিশ্চিত করার দাবি জানান।

তাহমিনা রহমান বলেন, সাংবাদিকরা প্রায় সময়ই মানহানির মামলা ও হয়রানিমূলক মামলাসহ আইনের অপপ্রয়োগের শিকার হন। গত বছরের চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, গত বছর সাংবাদিকরা ৮৯টি মানহানির মামলার ঘটনার শিকার হয়েছেন যার মধ্যে ডেইলি স্টার সম্পাদক মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধেই ৬৬টি ফৌজদারি মানহানির মামলা করা হয়েছে। তিনি বলেন, আর্টিকেল ১৯ সবসময়ই সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে আইনের অপপ্রয়োগের বিরুদ্ধে সোচ্ছার।

আর্টিকেল ১৯ এর এই আঞ্চলিক পরিচালক তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারা বাতিলেরও দাবি জানান। তিনি বলেন, এ ধারাটি মত প্রকাশের স্বাধীনতার জন্য হুমকি।

ব্লাস্ট এর অবৈতনিক নির্বাহী পরিচালক ব্যারিস্টার সারা হোসেনের সঞ্চালনায় সেমিনারটিতে সভাপতিত্ব করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী জেড আই খান পান্না। (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)

Comments

comments

একই ধরণের সংবাদ