আপনার অবস্থান
মুলপাতা > অন্যান্য সংবাদ > জাতীয় জাদুঘরে দৃক-বেঙ্গল মসলিনের প্রযোজনা ‘লিজেন্ড অফ দ্য লুম’-এর উদ্বোধনী প্রদর্শনী

জাতীয় জাদুঘরে দৃক-বেঙ্গল মসলিনের প্রযোজনা ‘লিজেন্ড অফ দ্য লুম’-এর উদ্বোধনী প্রদর্শনী

আগামীকাল, ৩০ জুলাই, ২০১৭, রোববার, বিকাল ৩টায় বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরের সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে আয়োজিত হতে যাচ্ছে দৃক-বেঙ্গল মসলিন প্রকল্প প্রযোজিত এবং টিনাইনএফএক্স (T9fx) পরিচালিত প্রামাণ্য তথ্যচিত্র ‘লিজেন্ড অফ দ্য লুম’ (তাঁতের কিংবদন্তি)-এর উদ্বোধনী প্রদর্শনী (প্রিমিয়ার স্ক্রিনিং)।

এ আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী জনাব আসাদুজ্জামান নূর। আর থাকবেন বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরের মহাপরিচালক জনাব ফয়জুল লতিফ চৌধুরী এবং ‘মসলিন. আওয়ার স্টোরি’র লেখক এবং দৃক-এর প্রধান নির্বাহী জনাব সাইফুল ইসলাম। তথ্যচিত্র প্রদর্শন শেষে একটি প্রশ্নোত্তর পর্বের আয়োজন থাকবে।

দৃক-বেঙ্গল মসলিন প্রকল্পের ব্যানারে, বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর এবং আড়ং- এর সহযোগিতায় ২০১৬’র ফেব্রুয়ারিতে মাসজুড়ে আয়োজিত হয় ‘মসলিন উৎসব’। এর অংশ হিসাবে বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরের নলিনীকান্ত ভট্টশালী গ্যালারিতে আয়োজিত হয় মাসব্যাপী প্রদর্শনী, দিনব্যাপী মসলিনের ইতিহাস-বৃত্তান্ত বিষয়ক সেমিনার, আহসান মঞ্জিলে ‘মসলিন নাইট’, ‘মসলিন. আওয়ার স্টোরি’ শিরোনামে বই প্রকাশনা, ‘মসলিনের দেশে’ শিরোনামে শিশু-কিশোরদের জন্য বাংলা এবং ইংরেজি কমিক বই প্রকাশনা।

আগামীকাল ‘লিজেন্ড অফ দ্য লুম’-এর উদ্বোধনী প্রদর্শনী এই প্রকল্পেরই একটি ধারাবাহিক আয়োজন।

৪৩ মিনিট দৈর্ঘ্যের ইংরেজি ভাষায় নির্মিত তথ্যচিত্রটির গবেষণায় ছিলেন সাইফুল ইসলাম, প্রযোজনা করেছে দৃক বেঙ্গল মসলিন, পরিচালনায় ছিল টিনাইনএফএক্স (T9fx) এবং ধারাবর্ণনা দিয়েছেন মিতা রহমান।

২০০০ বছরের ইতিহাস; বাংলাদেশের নদীর তীর, যেখানে কার্পাস তুলার চাষ হত; সেখান থেকে বিশ্বের সবচেয়ে নামী কাপড়ের উৎপাদন প্রক্রিয়া; বিশ্ব ফ্যাশন এবং বাণিজ্যে এর প্রভাব এবং এর বর্তমান অবস্থা-এসব প্রশ্নের উত্তর খুঁজে পাওয়া যাবে এই তথ্যচিত্রে।

তথ্যচিত্রটি পর্যায়ক্রমে ঢাকার আর বেশ কয়েকটি ভেন্যুতে প্রদর্শিত হবে এবং শীঘ্রই এর একটি বাংলা সংস্করণও প্রদর্শনের পরিকল্পনা রয়েছে। প্রতিটি প্রদর্শনীই সকলের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।(প্রেস বিজ্ঞপ্তি)

Comments

comments

একই ধরণের সংবাদ