আপনার অবস্থান
মুলপাতা > অন্যান্য সংবাদ > ইউএপিতে এসিএম-আইসিপিসি এশিয়া আঞ্চলিক প্রতিযোগিতা-২০১৬ অনুষ্ঠিত

ইউএপিতে এসিএম-আইসিপিসি এশিয়া আঞ্চলিক প্রতিযোগিতা-২০১৬ অনুষ্ঠিত

icpcরাজধানীর ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিকে (ইউএপি) শুরু হয়েছে এসিএম-আন্তর্জাতিক কলেজিয়েট প্রোগামিং প্রতিযোগিতা। গ্রিন রোডে ইউএপির নিজস্ব ক্যাম্পাস ভবনে গতকাল শুক্রবার ও শনিবার দুই দিনব্যাপী এই প্রতিযোগিতার অনুষ্ঠিত হয়।

প্রথম তিনটি বিজয়ী দল হলো বুয়েট রায়ো, বুয়েট ওমনিটিক্্র এবং ঢাকা সেনসরড । বিজয়ীদেরকে ট্রফি ও নগত অর্থ দেওয়া হয়। মেয়ে দলগুলোর মধ্যে টপ দল হলো চুয়েট গার্লস এরিয়া পারল। এদেরকে ক্রেস্ট ও চেক বন্ড পুরস্কার হিসেবে দেওয়া হয়।

পুরস্কার বিতরনী ও সমাপনী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় অর্থমন্ত্রী জনাব আবুল মাল আব্দুল মুহিত। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনাব জুনাইদ আহমেদ পলক, এমপি, মাননীয় প্রতিমন্ত্রী আইসিটি বিভাগ, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার এবং জনাব কাইয়ুম রেজা চৌধুরী, চেয়ারম্যান, বোর্ড অব ট্রাষ্টি, এশিয়া প্যাসিফিক বিশ্ববিদ্যালয়।

উক্ত প্রতিযোগীতায় বিজয়ীদের মধ্যে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ০৪ (চার) লক্ষ টাকা পুরস্কার হিসাবে বিতরণ করা হয়।

এবারের প্রতিযোগিতায় মোট ১,৬৬৫ টি দল নিবন্ধন করে যার মধ্যে ৮১ টি প্রতিষ্ঠানের ১,৫৬৬ টি দল অংশগ্রহণ করে।

গতকাল বিকেলে প্রধান অতিথি হিসেবে প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান।

প্রতিযোগিতার প্রধান আয়োজক ইউএপির কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগ (সিএসই)। সহযোগিতায় রয়েছে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল ও সরকারের তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগ।

ইউএপির উপাচার্য জামিলুর রেজা চৌধুরী উদ্বোধন অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন।

এসিএম-আইসিপিসি প্রতিযোগিতাটি দুইটি ধাপে অনুষ্ঠিত হয়। প্রাক-নির্বাচনী অনলাইন প্রতিযোগিতা এবং মূল প্রতিযোগিতা। মূল প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীরা একটি নির্দিষ্ট প্রাঙ্গনে সমাবেত হয়ে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে থাকেন। এ বছর প্রাক-নির্বাচনী প্রতিযোগিতায় এবং মূল প্রতিযোগিতা প্রতিযোগিতায় মোট ১,৬৬৫ টি দল নিবন্ধন করে যার মধ্যে ৮১ টি প্রতিষ্ঠানের ১,৫৬৬ টি দল অংশগ্রহণ করে।

উল্লেখ্য ২০১৫ সালে ৭৫ টি প্রতিষ্ঠানের ৯৮৫টি দল অংশগ্রহণ করেছিল। বাংলাদেশের তরুন প্রোগ্রামারদের এই ক্রমাগত আগ্রহ বৃদ্ধি (৬৫% এর অধিক) বিশ্বের দরবারে আমাদের অবস্থান তৈরীতে সহায়তা করবে।

এছাড়া আরও উল্লেখ যোগ্য যে, আইসিপিসির ইতিহাসে এবারই প্রথমবারের মত ১২৯ টি মেয়েদের দল অংশগ্রহণ করেছে। ১৯ নভেম্বর এর মূল প্রতিযোগিতায় ১২৫ টি দল অংশগ্রহন করবে।

আজ শনিবার প্রতিযোগিতার শেষ দিনে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হবে।

ঢাকা আঞ্চলিক (এসিএম-আইসিপিসি) প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকেন স্বনামধন্য অধ্যাপক ড. সি জে হুয়াং, পরিচালক এসিএম-আইসিপিসি, এশিয়া আঞ্চলিক। উল্লেখ্য, অধ্যাপক ড. সি জে হুয়াং, একজন প্রখ্যাত কম্পিউটার বিজ্ঞানী। তিনি বর্তমানে টেক্সাস স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞান বিভাগে অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত আছেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জনাব শ্যাম সুন্দর শিকদার, সচিব, তথ্য যোগাযোগ ও প্রযুক্তি বিভাগ(আইসিটিডি) এবং জনাব কাইয়ুম রেজা চৌধুরী, চেয়ারম্যান, বোর্ড অব ট্রাষ্টি, এশিয়া প্যাসিফিক বিশ্ববিদ্যালয়।

উল্লেখ্য আগামী ২০-২৫ মে এসিএম-আইসিপি ওয়ার্ল্ডফাইনাল-২০১৭ আমেরিকার সাউথ ডাকোটাতে অনুষ্ঠিত হবে। এসিএম-আইসিপিসি ঢাকা রিজিওনাল-এর প্রথম ৩/৪ টি দল ওয়ার্ল্ড ফাইনালে অংশগ্রহণ করবে বলে আশা করা হচ্ছে। (প্রেস বিজ্ঞপ্তি)

Comments

comments

একই ধরণের সংবাদ