আপনার অবস্থান
মুলপাতা > শিল্প ও খাতসমূহ > বিমান > ২০১৭ সালে প্রায় ৬ কোটি যাত্রী পরিবহন করেছে এমিরেটস্

২০১৭ সালে প্রায় ৬ কোটি যাত্রী পরিবহন করেছে এমিরেটস্

আরো একটি সফল ও প্রবৃদ্ধির বছর অতিক্রম করল দুবাইভিত্তিক এমিরেটস্ এয়ারলাইন।

২০১৭ সালে এয়ারলাইনটি তাদের নেটওয়ার্কভুক্ত ১৫৬টি গন্তব্যে ৫ কোটি ৯০ লাখ যাত্রী পরিবহন করেছে। এ সময় প্রতি সপ্তাহে গড়ে ৩,৬০০টি এবং মোট ১৯১,০০০ এর অধিক যাত্রী ফ্লাইট পরিচালিত হয়েছে। এমিরেটস্রে মালামাল পরিবহন শাখা- এমিরেটস্ স্কাই কার্গো উল্লিখিত সময়ে ২৫ লাখ টনের অধিক কার্গো পরিবহন করেছে।

এমিরেটস্ এয়ারলাইনের প্রেসিডেন্ট টিম ক্লার্কের মতে উত্থান-পতনের মধ্যে এমিরেটস্রে প্রবৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে এবং একই সঙ্গে নিজস্ব অবস্থান আরো সুদৃঢ় করতে সমর্থ হয়েছে। তিনি জানান, সেবার মান অক্ষুণœ রেখে ব্যবসা ও পরিচালনা কার্যক্রমকে আরো দক্ষ করার লক্ষ্যে রাজস্ব বৃদ্ধির জন্য বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ, ব্যয় হ্রাস ও নতুন প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে।

২০১৭ সালে এমিরেটস্ বহরে ২১টি নতুন উড়োজাহাজ- ৯টি এয়ারবাস এ৩৮০ এবং ১২টি বোয়িং ৭৭৭-৩০০ইআর উড়োজাহাজযুক্ত হয়েছে। বছর শেষে এয়ারলাইন বহরে মোট উড়োজাহাজের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৬৯টিতে এবং আরো ২৪৩টির ডেলিভারি অর্ডার রয়েছে। এ সময় ১১টি উড়োজাহাজ বহর থেকে বাদ দেয়া হয়েছে।

নভেম্বর মাসে এমিরেটস্ তাদের ১০০তম এয়ারবাস এ৩৮০ উড়োজাহাজের ডেলিভারি গ্রহণ করেছে। উল্লেখ্য, এ জাতীয় সর্বাধুনিক দ্বিতল উড়োজাহাজের সর্ববৃহৎ বহর পরিচালনা করছে এমিরেটস্।

দুবাই এয়ার শো’তে এয়ারলাইনটি ১৫.১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের ৪০টি বোয়িং ৭৮৭ ড্রিমলাইনারের অর্ডার পেশ করে একটি নতুন রেকর্ড স্থাপন করেছে।

গত বছরে এমিরেটস্ নেটওয়ার্কে ৩টি নতুন গন্তব্য যুক্ত হয়েছে, এগুলো হচ্ছেÑ যুক্তরাষ্ট্রের নিউআর্ক, ক্রোয়েশিয়ার জাগরেভ এবং কম্বোডিয়ার নমফেন। অধিকন্তু বিভিন্ন রুটে ফ্লাইট সংখ্যা এবং ক্যাপাসিটি বৃদ্ধি করা হয়েছে।

দক্ষ বাণিজ্যিক পাইলটের ক্রমবর্ধমান চাহিদা পূরণের লক্ষ্যে দুবাইয়ে স্থাপন করা হয়েছে অত্যাধুনিক এমিরেটস্ ফ্লাইট ট্রেনিং একাডেমি।

জুলাই মাসে ফ্লাই দুবাইয়ের সঙ্গে একটি গুরুত্বপূর্ণ পার্টনারশিপ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে যার ফলে এমিরেটস্ যাত্রীরা উভয় এয়ারলাইনের সম্মিলিত নেটওয়ার্কে ২০০টির অধিক গন্তব্যে ভ্রমণের সুবিধা পাচ্ছেন।

অক্টোবর মাসে কোয়ান্টাসের সঙ্গে পার্টনারশিপ চুক্তির মেয়াদ ২০২৩ সাল পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়েছে।

Comments

comments

একই ধরণের সংবাদ