আপনার অবস্থান
মুলপাতা > শিল্প ও খাতসমূহ > টেলিযোগাযোগ > ঢাকা সফরে আসছেন আজিয়াটা প্রধান

ঢাকা সফরে আসছেন আজিয়াটা প্রধান

আজিয়াটা গ্রুপ বারহাদ’র ম্যানেজিং ডিরেক্টর/প্রেসিডেন্ট অ্যান্ড চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার তান শ্রী জামালউদিন ইব্রাহিম আজ রাতে (জুন ৭, ২০১৭) একদিনের আনুষ্ঠানিক সফরে বাংলাদেশে আসছেন।

এয়ারটেলের সাথে একীভূতকরণের পর আজিয়াটা পরিচালিত কোম্পানি রবি’র অগ্রগতি পর্যবেক্ষণের জন্য এ সফরে আসছেন তিনি। সফরকালে সংশ্লিষ্ট পদস্থ সরকারী কর্মকর্তাদের সাথেও বৈঠক করবেন রবি’র মূল কোম্পানি’র এই প্রধান।

তার সফরসঙ্গী হিসেবে থাকবেন আজিয়াটার দক্ষিণ এশিয়া’র রিজিওনাল সিইও ড. হ্যানস বিজয়সুরিয়া, আজিয়াটা গ্রুপ চিফ ফিনান্সিয়াল অফিসার বিবেক সুদ, গ্রুপ চিফ কর্পোরেট অফিসার মোহাম্মদ ইধাম নাওয়াউই, গ্রুপ চিফ বিজনেস অপারেশন্স অফিসার মোহাম্মদ আসরি হাসান সাবরি, গ্রুপ চিফ এইচআর অফিসার ডারকি এম সানি, গ্রুপ চিফ ট্যালেন্ট অফিসার দাতিন বদরুন্নিসা মো. ইয়াসিন খান, গ্রুপ চিফ টেকনোলজি অফিসার আমানদীপ সিং এবং গ্রুপ চিফ স্ট্র্যাটেজি অফিসার ডমিনিক পল অ্যারেনা।

এশিয়ার অন্যতম বৃহৎ টেলিযোগাযোগ কোম্পানি হিসাবে আজিয়াটা গ্রুপ ১০টি দেশে ৩২ কোটি গ্রাহককে টেলিযোগাযোগ সেবা প্রদান করছে। মোবাইল নেটওয়ার্ক অপারেশনে সমৃদ্ধ অভিজ্ঞতা, টেলিযোগাযোগ অবকাঠামো সেবা ও ডিজিটাল সেবা প্রদানের মাধ্যমে সেরা সংযোগ, প্রযুক্তি ও মানবসম্পদ কাজে লাগিয়ে এশিয়াকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার রূপকল্প নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে আজিয়াটা।

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া ও দক্ষিণ এশিয়ার বাজারে শীর্ষস্থানীয় মোবাইল ফোন অপারেটরগুলোতে সিংহভাগ মালিকানা রয়েছে আজিয়াটার। মালয়েশিয়ায় ‘সেলকম’, ইন্দোনেশিয়ায় ‘এক্সএল’, শ্রীলঙ্কায় ‘ডায়ালগ’, বাংলাদেশে ‘রবি’, ক্যাম্বোডিয়ায় ‘স্মার্ট’, নেপালে এনসেল এবং কৌশলগত অংশীদার হিসাবে ভারতে ‘আইডিয়া’ ও সিঙ্গাপুরে ‘এম ওয়ান’ নামে কার্যক্রম পরিচালনা করছে কোম্পানিটি।

প্রতিশ্রুতিশীল ও দীর্যমেয়াদী বিনিয়োগকারী হিসাবে কার্যক্রম পরিচালনার লক্ষ্যে আজিয়াটা ২৫ হাজার মানবসম্পদ নিয়োগ করেছে। অগ্রগতি ধরে রাখার লক্ষ্যে তরুণ মেধাবীদের উন্নয়নে পদক্ষেপ এবং দুর্যোগকালীন ব্যবস্থা গ্রহণের পাশাপাশি পরিবেশ-বান্ধব কার্যক্রমের ওপর জোর দিচ্ছে আজিয়াটা।

Comments

comments

একই ধরণের সংবাদ