আপনার অবস্থান
মুলপাতা > শিল্প ও খাতসমূহ > টেলিযোগাযোগ > ট্যালেন্ট ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামের আওতায় গ্র্যাজুয়েশন করলেন রবি’র ৩১ কর্মকর্তা

ট্যালেন্ট ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামের আওতায় গ্র্যাজুয়েশন করলেন রবি’র ৩১ কর্মকর্তা

রবি’র ট্যালেন্ট ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম-একসেলারেটেড ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামের (আরএডিপি) আওতায় এ বছর মোট ৩১ জন কমকর্তা গ্র্যাজুয়েশন করেছেন। এ উপলক্ষ্যে রাজধানীর গুলশানে রবি কর্পোরেট অফিসে সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে অপারেটরটি।

২০১৫ সাল থেকে রবি আরএডিপি গ্র্যাজুয়েশন সেরিমনি’র আয়োজন করে আসছে। এ নিয়ে তৃতীয়বারের মতো কোম্পানিতে সনদ প্রদানের এ অনুষ্ঠানটির আয়োজন করা হলো।

অনুষ্ঠানে আরএডিপি মেম্বারদের মধ্যে যারা গ্র্যাজুয়েট হয়েছেন তাদের হাতে সদন তুলে দেন রবি’র ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড সিইও মাহতাব উদ্দিন আহেমদ। এসময় চিফ কর্পোরেট অ্যান্ড পিপল অফিসার মতিউল ইসলাম নওশাদ এবং চিফ টেকনোলজি অফিসার এ কে এম মোর্শেদ উপস্থিত ছিলেন। কোম্পানির ট্যালেন্ট অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের ভাইস প্রেসিডেন্ট শারমিন সুলতান অনুষ্ঠানটির আয়োজন করেন।

আজিয়াটা গ্রুপের রূপকল্প এবং রবি’র মেধা ব্যবস্থাপনা কর্মকৗশলের ওপর ভিত্তি করে এক কঠোর মূল্যায়ন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে আরএডিপি বা ট্যালেন্টপুল মেম্বারদের মনোনীত করা হয়। এরপর নির্ধারিত ওই আরএডিপি সদস্যদের এমনভাবে প্রশিক্ষণ ও দিকনির্দেশনা প্রদান করা হয় যাতে তারা ভবিষ্যতে রবি বা আজিয়াটার অন্যান্য কোম্পানিতে আরো দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে পারেন।

পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধি, টেলিযোগাযোগ শিল্পের জটিল বিষয়গুলোতে নিজস্ব দৃষ্টিভঙ্গি এবং এমন আরো অনেক বিষয়ের উপর ভিত্তি করে আরএডিপি ট্যালেন্টপুল মেম্বারদের গ্রাজুয়েশনের জন্য যোগ্য হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

রবি’র আরএডিপি প্রোগামের পাশাপাশি আজিয়াটা গ্রুপ পরিচালিত গ্রুপ একসেলারেটেড ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামের (জিএডিপি)আওতায় রবি’র জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারাও নিজেদের আরো যোগ্য ও দক্ষ করে গড়ে তোলার সুযোগ পান যাতে তারা ভবিষ্যতে রবি বা আজিয়াটার অন্য কোন কোম্পানিতে শীর্ষ পদগুলোতে দায়িত্ব পালন করতে পারেন।

Comments

comments

একই ধরণের সংবাদ