আপনার অবস্থান
মুলপাতা > শিল্প ও খাতসমূহ > পর্যটন > চট্টগ্রামে তিন দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক পর্যটন মেলা শুরু

চট্টগ্রামে তিন দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক পর্যটন মেলা শুরু

ctmআজ, ১ ডিসেম্বর থেকে বন্দরনগরী চট্টগ্রামের দি পেনিনসু্যুলা চিটাগাং হোটেলে শুরু হয়েছে তিন দিনব্যাপী অষ্টম আন্তর্জাতিক পর্যটন মেলা- ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনস্ চিটাগাং ট্রাভেল মার্ট-২০১৬। দেশের শীর্ষস্থানীয় ভ্রমণবিষয়ক পাক্ষিক দি বাংলাদেশ মনিটর আয়োজিত এ মেলার টাইটেল স্পন্সর ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনস্।

আজ সকালে মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম চেম্বার অব কর্মাস ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মাহবুবুল আলম। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দি বাংলাদেশ মনিটর সম্পাদক কাজী ওয়াহিদুল আলম, বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের প্রধান নির্বাহী আখতারুজ্জামান খান কবির, দি পেনিনস্যুলা চিটাগাং হোটেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোস্তফা তাহসিন আরশাদ এবং ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের পরিচালক, বিক্রয় ও বিপণন গাজী সালাহউদ্দিন।

চট্টগ্রাম চেম্বারের সভাপতি মাহবুবুল আলম তার বক্তব্যে পর্যটন উন্নয়নের স্বার্থে চট্টগ্রাম অঞ্চলের কানেকটিভিটি বাড়ানোর ওপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বেসরকারি বিমান সংস্থাগুলোকে বিশেষ করে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসকে চট্টগ্রাম থেকে ব্যাংকক ও কুয়ালালামপুরে ফ্লাইট পরিচালনার পরামর্শ দেন।

কাজী ওয়াহিদুল আলম তার বক্তব্যে বলেন, ‘যেহেতু চট্টগ্রাম অঞ্চল বাংলাদেশের পর্যটনের প্রাণকেন্দ্র; অতএব, এই অঞ্চলটির পর্যটন উন্নয়নের জন্য একটি স্বতন্ত্র কমিটি গঠন করা আবশ্যক, যারা চট্টগ্রাম চেম্বারের অধীনে অঞ্চলটির পর্যটন গুরুত্ব ও সুবিধা বিশ্বের সামনে তুলে ধরবে।’

বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের প্রধান নির্বাহী আখতারুজ্জামান খান কবির তার বক্তব্যে চট্টগ্রাম অঞ্চলের পর্যটনের উন্নয়নের জন্য বোর্ডের পক্ষ থেকে সার্বিক সহায়তার আশ্বাস প্রদান করেন।

দি পেনিনস্যুলা চিটাগাং হোটেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক দেশের বিকাশমান হসপিটালিটি শিল্প বিকাশের স্বার্থে হোটেল সরঞ্জাম আমদানির ওপর প্রস্তাবিত সম্পূরক শুল্ক প্রত্যাহারের আবেদন জানান। আমদানিকৃত সরঞ্জামের জন্য যে বিএসটিআই অনুমোদন বিধান প্রস্তাব করা হয়েছে তার মতে এটি দেশের হসপিটালিটি শিল্পের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে।

চিটাগাং ট্রাভেল মার্টে বিমান সংস্থা, ট্যুর অপারেটর, হোটেল, রিসোর্ট, বিনোদন পার্ক ও পর্যটন ব্যবসার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান অংশ নিচ্ছে। মেলা চলাকালীন অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলো বিমান টিকেট, ট্যুর প্যাকেজ, হোটেল রুম এবং অন্যান্য পণ্য ও সেবার ওপর বিশেষ মূল্যছাড় প্রদান করছে।

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনস্ তাদের সকল অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক গন্তব্যে টিকেটের ওপর ১৫% মূল্যছাড় প্রদান করছে। অন্যদিকে কক্সবাজারের লংবিচ হোটেল রুম ভাড়ার ওপর ৫০%, ওশেন প্যারাডাইস ৪০% এবং সিগাল হোটেল ৩৫% মূল্যছাড় অফার করছে। ট্যুর অপারেটর একটিভেশন ট্যুরিজম তাদের প্যাকেজের ওপর ১০% মূল্যছাড় এবং বেস্ট বাংলা ট্যুরস্ এন্ড ট্রাভেলস্ প্যাকেজ ক্রেতাদের সৌজন্যমূলক ট্যুরিস্ট ভিসা অফার করছে।

আগামী ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত চিটাগাং ট্রাভেল মার্ট প্রতিদিন সকাল ১০.৩০ মিনিট থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। মেলায় কোন প্রবেশ মূল্য নেই।

Comments

comments

একই ধরণের সংবাদ