আপনার অবস্থান
মুলপাতা > শিল্প ও খাতসমূহ > তথ্য প্রযুক্তি > আইসিটি ডিভিশনের উদ্যোগে ‘এম্বাসেডরস্ নাইট’ অনুষ্ঠিত

আইসিটি ডিভিশনের উদ্যোগে ‘এম্বাসেডরস্ নাইট’ অনুষ্ঠিত

ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিতব্য “ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৭” এ সংশ্লিষ্ট দেশের তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রীবর্গ এবং প্রতিষ্ঠিত আইটি প্রতিষ্ঠানের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বাংলাদেশে কর্মরত শীর্ষস্থানীয় বিদেশী কূটনীতিকদের কাছ থেকে সহযোগিতার আহবান জানালেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম ও আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্মেদ পলক।

গতকাল রাতে দুই প্রতিমন্ত্রী রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় আয়োজিত “এম্বাসেডরস্ নাইট” এ এই আহবান জানান।

আইসিটি ডিভিশন আয়োজিত অনুষ্ঠানে ১৭ দেশের রাষ্ট্রদূত, হাই কমিশনার ও চার্জ দ্যা অফেয়ার্সসহ শীর্ষস্থানীয় কূটনীতিকগণ অংশ নেন। কূটনীতিকগণ এ সময় তাঁদের আন্তরিক প্রয়াস ও সর্বাতœক সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানে নতুন নতুন সমস্যা মোকাবেলা ও বিশ্বব্যাপী ডিজিটাল পরিবর্তনের হুমকি মেকাবেলায় সমন্বিত প্রচেষ্টার গুরত্ব এবং ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৭ আয়োজনের প্রয়োজনীয় তুলে ধরে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড এমন একটি প্লাটফর্ম যেখানে সর্বোত্তম উপায়ে বিদ্যমান সমস্যাসমূহ মোকাবেলায় পারস্পরিক সহযোগিতার ভিত্তিতে কার্যকর উপায় খুঁজে বের করতে মিনিস্টারিয়েল কনফারেন্স এর আয়োজন করা হয়।

শীর্ষ কূটনীতিকদেরকে ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে সরকারের অর্জন তুলে ধরে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের বিবেচিত মূল ভিত্তিসমূহের অগ্রগতি ও আমাদের সক্ষমতা ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৭ এর মাধ্যমে আমরা বরাবরের মতোই তুলে ধরব।

সফল আয়োজনের লক্ষ্যে তিনি কূটনীতিকদের সহযোগিতা কামনা করে বলেন, “ডিজিটাল বাংলাদেশের চমক দেখতে আমি আপনাদেরকে আন্তরিকভাবে আহবান জানাই। পাশাপাশি আপনাদের নিজ নিজ দেশের প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের অংশগ্রহণও প্রত্যাশা করছি।”

পরে উন্মুক্ত আলোচনায় শীর্ষ কূটনীতিকগণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসনিার নেতৃত্বে স্বল্প সময়ে বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের ব্যাপক অগ্রগতির ভূয়সী প্রশংসা করেন। বেশ কয়েকজন কূটনীতিক বাংলাদেশী তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের অব্যাহত উন্নতির প্রশংসা করে বলেন, বাংলাদেশী প্রতিষ্ঠানগুলো আজ দেশের গ-ি ছাড়িয়ে বিদেশেও ভালো করছে। সরকারের অগ্রাধিকার প্রাপ্ত এ খাতে কূটনীতিকগণ নিজ নিজ দেশের বিনিয়োগেরও আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠানে কূটনীতিকগণ আগামী ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৭ এ তাদের নিজ নিজ দেশের তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রীবর্গের এবং শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি ব্যক্তিত্ব ও প্রতিষ্ঠানের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে সর্বাতœক সহযোগিতার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠানে নরওয়ের রাষ্ট্রদূত সিডসেল ব্ল্যকেন, ভুটানের রাষ্ট্রদূত সোনাম তাদেন রাবগি, ফিলিপাইনের রাষ্ট্রদূত ভিনসেন্ট ভিভেন্সো, দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত এএইচএন সিয়ং-ডো, পররাষ্ট্র সচিব মো. শহিদুল হক, আইসিটি বিভাগের সচিব সুবির কিশোর চৌধুরী, যুক্তরাষ্ট্রের চার্জ দ্যা অফেয়ার্স এদোয়ার্দো গার্সিয়া, ইউরোপীয় ইউনিয়নের চার্জ দ্যা অফেয়ার্স অব ডেলিগেশন কনস্টানটিনোস ভার্ডাকিস, নেদারল্যান্ডের মিশন উপ-প্রধান জেরোয়েন স্টিগস্, বেসিস সভাপতি মোস্তফা জব্বার, এটুআই পলিসি এডভাইজর আনীর চৌধুরী এ সময় বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এবং তথ্যপ্রযুক্তি-ভিত্তিক দেশীয় ব্যবসায়িক সংগঠনগুলোর শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তাগণ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

আগামী ডিসেম্বরের ৬ তারিখ থেকে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ৪-দিন ব্যাপী ‘ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৭’ হলো দেশের সবচেয়ে বড় তথ্যপ্রযুক্তি প্রদর্শনী। এই আয়োজনে তথ্যপ্রযুক্তি খাতের দেশী-বিদেশী উচ্চ-পদস্থ ব্যক্তিবর্গ, প্রতিষ্ঠান এবং বাংলাদেশ সরকারের সেবা প্রদানকারী মন্ত্রণালয়, বিভাগ ও অফিসসমূহ অংশ নেবে। (প্রেস বিজ্ঞপ্তি)

Comments

comments

একই ধরণের সংবাদ