আপনার অবস্থান
মুলপাতা > কর্পোরেট নিউজ > সর্বাধুনিক প্রযুক্তি নিয়ে টাম্পাকো ফয়লস্-এর পথ চলা শুরু

সর্বাধুনিক প্রযুক্তি নিয়ে টাম্পাকো ফয়লস্-এর পথ চলা শুরু

গত ৯ আগস্ট এক জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে টাম্পাকো ফয়লস্ লিমিটেড-এর নতুন ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে নতুন ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের মধ্য দিয়ে ভবন নির্মাণের অনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জনাব আসাদুজ্জামান খান কামাল এমপি। এরই মধ্য দিয়ে টঙ্গীর বিসিক শিল্পনগরীতে টাম্পাকোর শ্রমিকদের মধ্যে শুরু হলো স্বপ্ন বুননের নবযাত্রা।

সাবেক স্বতন্ত্র সাংসদ ও ‘টাম্পাকো গ্রুপ’-এর চেয়ারম্যান জনাব ড. সৈয়দ মকবুল হোসেন-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সম্মানীত বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- মাননীয় সংসদ সদস্য এবং যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি জনাব মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল।

নতুন কারখানা সম্পর্কে টাম্পাকো গ্রুপ-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাফিউস সামি আলমগীর জানান, গ্রীন ফ্যাক্টরী মডেল অনুসারে একটি আদর্শ এবং পরিবেশবান্ধব কারখানা নির্মাণ করা হবে। প্রস্তাবিত এ কারখানার বাৎসরিক উৎপাদন ক্ষমতা হবে প্রায় ১৮,৫০০ মে: টন আর বাংলাদেশে প্যাকেজিং খাতে এই কারখানাটিই হবে সর্বাধূনিক প্রযুক্তিযুক্ত এবং সর্বোচ্চ পণ্য উৎপাদন ক্ষমতা সম্পন্ন কারখানা।

তিনি আরো জানান, প্রস্তাবিত কারখানা থেকে বাৎসরিক প্রায় ১৫০ কোটি টাকা সরকারের রাজস্ব খাতে জমা হবে এবং এই কারখানায় প্রত্যক্ষ কর্মসংস্থান হবে ৫০০ জন লোকের আর পরোক্ষভাবে কর্মসংস্থান হবে ১০,০০০ জন লোকের।

টাম্পাকোর বিভিন্ন কার্যক্রম নিয়ে প্রাণবন্ত একটি ভিডিওচিত্র, দূর্ঘটনায় আহত ব্যক্তি এবং নিহত ব্যক্তির পরিবারের সদস্যদের বক্তব্য নিয়ে একটি ভিডিওচিত্র প্রদর্শন এবং দুর্ঘটনায় নিহত টাম্পাকোর শ্রমিকদের পরিবারের একজনকে কোম্পানীতে চাকুরী প্রদানের নিশ্চয়তাপত্র প্রদান শেষে ‘টাম্পাকো ফয়লস্ লিঃ’-এর ভিত্তিপ্রস্তর উন্মোচন করা হয়।

উল্লেখ্য গত বছর ১০ সেপ্টেম্বর কারখানাটি অগ্নকিান্ডেভস্মীভূত হয়ে যায় এবং তারপর থেকে কারখানাটি বন্ধ থাকলেও শ্রমিকদের বিনাপরিশ্রমে বেতন-ভাতা প্রতি মাসে পরিশোধ করে যাচ্ছিলকারখানা মালিক পক্ষ।অবশেষে প্রায় একবছর পর পুনরায় ঘুরে দাঁড়াতে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। (প্রেস বিজ্ঞপ্তি)

 

Comments

comments

একই ধরণের সংবাদ