আপনার অবস্থান
মুলপাতা > কর্পোরেট নিউজ > বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম ‘বেস্ট ব্র্যান্ড অ্যাওয়ার্ড ২০১৬’ প্রদান করবে ১৯ নভেম্বর

বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম ‘বেস্ট ব্র্যান্ড অ্যাওয়ার্ড ২০১৬’ প্রদান করবে ১৯ নভেম্বর

best-brand-award-2016বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ব্র্যান্ড গবেষণা প্রতিষ্ঠান কান্তর মিলওয়ার্ড ব্রাউন, বাংলাদেশের অংশীদারিত্বে এবং দ্য ডেইলি স্টার-এর সহযোগিতায় বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম (বিবিএফ) ‘বেস্ট ব্র্যান্ড অ্যাওয়ার্ড ২০১৬’ নামে সেরা ব্র্যান্ড পুরস্কার প্রদান করবে।

রাজধানীর হোটেল লা মেরিডিয়ান ঢাকায় আগামী ১৯ নভেম্বর শনিবার এই পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে। বিবিএফের উদ্যোগে এটি এ ধরনের অষ্টম পুরস্কার।

বেস্ট ব্র্যান্ড অ্যাওয়ার্ড প্রদানের উদ্দেশ্য হচ্ছে, সেই সব ব্র্যান্ডকে স্বীকৃতি প্রদান করা যেগুলো সংগঠনের অবিচ্ছেদ্য এবং অনেক ক্ষেত্রেই এককভাবে কোম্পানির সবচেয়ে বড় সম্পদ অংশ হয়ে উঠেছে। এভাবে বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামের (বিবিএফ) প্ল্যাাটফর্মের মাধ্যমে দেশের সেরা ব্র্যান্ডগুলোকে চিহ্নিত করে তাদের ব্যবসায়িক সফলতার স্বীকৃতি প্রদান এবং ব্র্যান্ড তৈরিতে তাদের যে অর্জন সেটাকে সবার সামনে প্রকাশ করা হচ্ছে।

দেশব্যাপী পরিচালিত এক গবেষণা-জরিপের ভিত্তিতে ৩৩টি ক্যাটেগরি বা শ্রেণিতে বাংলাদেশের নেতৃস্থানীয় ব্র্যান্ডগুলোকে অনুষ্ঠানে সম্মান জানানো হয়েছে। জরিপটি পরিচালনা করেছে কান্তর মিলওয়র্ড ব্রাউন বাংলাদেশ।

এবারের জরিপে ৪,৮০০ জন ব্যক্তির মতামত নেওয়া হয়েছে। গবেষণা-জরিপটি পরিচালনায় গুণগত মান বজায় রাখার ওপর জোর দেওয়া হয়েছে। সে অনুযায়ী উত্তরদাতাদের মুখোমুখী হয়ে হাতে-কলমে ইন্টারভিউ বা সাক্ষাৎকার (পিএপিআই) নেওয়া হয়। একটি পরিকল্পিত প্রশ্নমালার ওপর উত্তরদাতাদের মত লিপিবদ্ধ করা হয়। উত্তরদাতাদের বাছাই করা হয় র‌্যান্ডম স্যাম্পলিং বা দৈবচয়নের মাধ্যমে।

ব্র্যান্ড গবেষণা বা ব্র্যান্ড নিয়ে কাজ করার ক্ষেত্রে মিলওয়ার্ড ব্রাউনের সুদীর্ঘ অভিজ্ঞতা রয়েছে। প্রতিষ্ঠানটি ১৯৭৩ সাশে শুরু করে এ পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী ১৮,০০০ ব্র্যান্ড ট্র্যাকিং করেছে। সুদীর্ঘ এই অভিজ্ঞতার ফলে ব্র্যান্ড গবেষণায় মিলওয়ার্ড ব্রাউন একটি ব্যাপকভিত্তিক ডেটাবেজ বা তথ্যভান্ডার ও নিজস্ব নর্মস বা মানদন্ড গড়ে তুলেছে। এটি এখন বিশ্বের বৃহত্তম ব্র্যান্ড ট্র্যাকিং প্রোভাইডার বা ব্র্যান্ড গবেষণা প্রতিষ্ঠান।

বর্তমানে বিশ্বজুড়ে ৬টি মহাদেশের ৫২টি দেশে মিলওয়ার্ড ব্রাউন ১,৮০০টি ব্র্যান্ড গবেষণা কার্যক্রম চলছে।

গবেষণা-জরিপে সেরা ব্র্যান্ডগুলোর নাম তুলে আনার ক্ষেত্রে কান্তর মিলওয়ার্ড ব্রাউনের এমডিএস (মিনিংফুল বা অর্থপূর্ণ, ডিফরেন্ট বা অন্যদের সাথে পার্থক্য এবং স্যালিয়েন্ট বা অগ্রগামিতা) ফ্রেমওয়ার্ক ব্যবহার করা হয়েছে। এ

মডিএস ফ্রেমওয়ার্ক অনুযায়ী জরিপে সেরা ব্র্যান্ডগুলো অপরাপর ব্র্যান্ডগুলোর চেয়ে কত বেশি অর্থপূর্ণ, কতটা পার্থক্য নিয়ে আছে এবং এগিয়ে রয়েছে। কারণ এ তিনটি বিষয় কোনো ব্র্যান্ডের কার্যক্রমের সক্ষমতা, সফলতা ও অর্জনের দিকগুলো নির্ধারণ করে দেয়; যা গ্রাহকদের আকৃষ্ট করে থাকে।

নির্দিষ্ট কোনো ব্র্যান্ডের জন্য একটি আদর্শ ভারসাম্য হলো, কোম্পানির ফিন্যান্সিয়াল রিটার্ন বা বিক্রির পরিমাণ এবং প্রিমিয়াম প্রাইসিং। সেরা ব্র্যান্ডগুলোর র‌্যাংকিং বা আনুক্রমিক অবস্থান নির্বাচনের জন্য দেশব্যাপী পরিচালিত গবেষণা-জরিপে কান্তর মিলওয়ার্ড ব্রাউন প্রতিষ্ঠানগুলোর পটভূমি, ইন-ক্যাটেগরি ও অ্যাক্রস-ক্যাটেগরি (ব্র্যান্ড অভ্যন্তরীণ বিষয় ও অন্য ব্র্যান্ডের সাথে মিল-অমিলের বিষয়গুলোর ওপর তুলনামূলক পার্থক্য-বিশ্লেষণে জোর দিয়েছে।

এবারে ২২টি এফএমসিজি (ফাস্ট-মুভিং কনজ্যুমার গুডস) ক্যাটাগরি ও ১১টি নন-এফএমসিজি ক্যাটেগরি বা শ্রেণিতে বিবিএফ বেস্ট ব্র্যান্ড অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হচ্ছে। এর মধ্যে প্রত্যেক ক্যাটেগরি বা শ্রেণিতে ১০টি সার্বিকভাবে সেরা ব্র্যান্ড এবং ১০টি স্থানীয় সেরা ব্র্যান্ডকে পুরস্কার দেওয়া হবে।

বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম (বিবিএফ) বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ব্র্যান্ড গবেষণা প্রতিষ্ঠান কান্তর মিলওয়ার্ড ব্রাউন, বাংলাদেশের সাথে অংশীদারিত্বের মাধ্যমে ‘বেস্ট ব্র্যান্ড অ্যাওয়ার্ড ২০১৬’ প্রদান করছে। এতে সহায়তা করছে ইংরেজি দৈনিক দ্য ডেইলি স্টার।

এই আয়োজনে সহায়তা প্রদানে আরও কয়েকটি সংস্থা শরিক হয়েছে। এর মধ্যে ইতিহাদ এয়ার রয়েছে এয়ারলাইন্স পার্টনারের ভূমিকায়। ইভেন্ট পার্টনার হয়েছে লা মেরিডিয়ান ঢাকা। রিয়েল এস্টেট পার্টনার হয়েছে রাকীন। নলেজ পার্টনার হিসেবে আছে এমএসবি (মার্কেটারস সোসাইটি অব বাংলাদেশ)। গাজী টিভি হয়েছে টিভি পার্টনার। আমরা রয়েছে আইটি পার্টনার হিসেবে। জনসংযোগ পার্টনারের দায়িত্ব পালন করছে মাস্টহেড পিআর। এ ছাড়া ওয়েবেবল ডিজিটাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া পার্টনার এবং ভিজ্যুয়াল পার্টনার হিসেবে রয়েছে আতোশ।

Comments

comments

একই ধরণের সংবাদ